আনোয়ার শাহাদাত

anwar-f.gifবরিশালেরও দক্ষিণে চাষবাস করে এমন কৃষক পরিবারের লোক। মফস্বল শহর ও গ্রাম মিলিয়ে বড় হওয়া বলা যেতে পারে। লেখা পড়ায় এমন কোনও চমক নেই কিন্তু মাস্টার্স পর্যন্ত তা ব্যবসা-ব্যবস্থাপনা বিষয়ে। ছাত্রাবস্থায় টিউশনি করতে ব্যর্থ হয়ে সাংবাদিকতায় নাম লেখায়। রোববার, বিচিন্তা, বিচিত্রা এইসব দিয়ে। অল্পেতে খাপ খেয়ে যাওয়ায় নিজেই একটি রাজনৈতিক পত্রিকা প্রকাশ ও সম্পাদনা করেন ‘আসে দিন যায়’। মৌলবাদীরা পত্রিকার উপর নাখোশ হলে বোমা ও আন্দোলন করে সরকারকে উদ্বুদ্ধ করে তা নিষিদ্ধ করতে। এরপর আবার দৈনিকে যোগ দেন বিশেষ প্রতিনিধি ‘রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক’ সংবাদদাতা হিসাবে আজকের কাগজে। নব্বুইয়ের শুরুতে দেশান্তরী হন, আমেরিকায়। সেখানে নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে পড়েন। গল্প লেখেন ‘পাবলিক খায়না’ এমন বিষয়, গাও গেরামের লোক ও ওই জীবন নিয়ে। দু’টো প্রকাশিত গল্পের বই “হেলে চাষার জোয়াল বৃত্তান্ত” এবং “ক্যানভেসার গল্পকার”। একখানা উপন্যাস বাংলাদেশের রাজনীতি ও মিলিটারি বিষয়ে ‘সাঁজোয়া তলে মুরগা”। গোটা পাঁচেক শর্ট ফিল্ম “ডায়নার সিক্স”, “এ্যাস ইট শুড বি”, “ফলিং লিভস” (বুদ্ধদেব বসুর কাহিনী), “ন্যানি”, “প্রিন্টার পারফেক্ট”। একটা ফিচার ফিল্ম “কারিগর” (The Circumciser) । বসবাস নিউ ইয়র্কে।
anwar.shahadat@gmail.com