ই-লাইব্রেরি

আর্টস ই-বুক

চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায়ের ‘উদভ্রান্ত প্রেম (১৮৭৫)’

admin | 31 May , 2011  

উদভ্রান্ত প্রেম

উদভ্রান্ত প্রেম

প্রথম প্রকাশ: ১৮৭৫

চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায়

(১৮৪৯ ১৯২২)

চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য এখন আর সহজলভ্য নয়। তাঁর পিতা-মাতা, নিবাস বা পেশা সম্পর্কে তথ্যাদি অপর্যাপ্ত। কিন্তু এটুকু জানা যায় যে, তিনি বঙ্গদর্শন-এর নিয়মিত লেখক ছিলেন।

বঙ্গদর্শন অন্তত তিন জনের সম্পাদনায় প্রকাশিত হয়, দুটি পর্বে। দুই পর্বে বলা হলো মাঝখানে বিরতির কারণে। প্রথম পর্বের সম্পাদক ছিলেন ক্রমান্বয়ে সঞ্জীবচন্দ্র ও বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় আর বঙ্গদর্শন নবপর্যায়ের সম্পাদক ছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায় বঙ্গদর্শনের দুটি পর্বেই নিয়মিত লেখক ছিলেন।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সম্পাদনাকালে বঙ্কিমযুগের অনেক লেখক বেঁচে থাকলেও চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায় ও শ্রীশচন্দ্র মজুমদার ছাড়া আর কাউকে এ পর্যায়ের লেখক হিসেবে পাওয়া যায় না; রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এই দুজনকে গ্রহণ করেছিলেন অথবা অন্যরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে তাদের সম্পাদক হিসাবে গ্রহণ করেননি।

পত্রিকায় প্রকাশিত প্রবন্ধ নিয়ে চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায় একটি প্রবন্ধ সংকলন প্রকাশ করেন ‘সারস্বতকুঞ্জ’ নামে। এটি প্রকাশিত হয় ১৮৮৫ সালে। ‘সারস্বতকুঞ্জ’-এর ভূমিকায় তিনি লিখেছেন, সংকলেন প্রবন্ধগুলি বঙ্গদর্শন, বান্ধব, জ্ঞানাঙ্কুর ও মাসিক সমালোচক-এ আগে প্রকাশিত হয়েছিলো।

উদ্ভ্রান্ত প্রেম প্রথম প্রকাশিত হয় ১৮৭৫ সালে। জানা যায়, লেখকের স্ত্রীর মৃত্যুর পরে তিনি ‘উদ্ভ্রান্ত প্রেম’ রচনা করেন। ষষ্ঠ (১৮৯৮), দশম (১৯১২) এবং অষ্টবিংশ (অজানা) সংস্করণে ‘উদ্ভ্রান্ত প্রেম’-কে ‘গদ্যকাব্য’ বলা হয়েছে।

প্রথম সংস্করণের প্রকাশক সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যায়নি। কিন্তু ষষ্ঠ সংস্করণের কপিতে দেখা যায়, প্রকাশক হিসাবে গুরুদাস চট্টোপাধ্যায়ের নাম; প্রকাশিত হয়েছিলো কলকাতা থেকে ১৮৯৮ সালে। ‘উদ্ভ্রান্ত প্রেম’-এর আটাশতম সংস্করণ পর্যন্ত কপি পাওয়া গেছে। সেটির প্রকাশক লেখা আছে ‘গুরুদাস চট্টোপাধ্যায় এন্ড সন্স’, ঠিকানা দেয়া আছে ‘কর্ণওয়ালিস স্ট্রীট, কলিকাতা’। এর পরে আর কোন সংস্করণ প্রকাশিত হয়েছিলো কিনা জানা যায়নি।

এবারে বিডিনিউজ২৪.কম থেকে ‘উদভ্রান্ত প্রেম’-এর আর্টস ই-বুক সংস্করণ প্রকাশিত হলো।

অনলাইনে পড়ুন অথবা/এবং ডাউনলোড করুন:
চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায়ের ‘উদভ্রান্ত প্রেম (১৮৭৫)’

উদভ্রান্ত প্রেম
অনলাইনে পড়তে উপরের ছবিতে ক্লিক করুন

অনলাইন পাঠের জন্য মাউজ ক্লিকে বইয়ের পৃষ্ঠা উল্টানোর মতো করে ফ্লিপ করা যাবে। ই-বুক উইন্ডো প্যানেলের নিচের দিকে ‘save pages’ বাটনে ক্লিক করে ই-বুকটির পিডিএফ ভার্সন ডাউনলোড করা যাবে। এছাড়া জুম করার জন্য ক্লিক করতে হবে, আর ফুলস্ক্রিন করার জন্য ই-বুক প্যানেলে নির্দিষ্ট বাটন আছে।

ডাউনলোড করুন: উদভ্রান্ত প্রেম

—————
logo-both.jpg

ফেসবুক লিংক । আর্টস :: Arts

free counters


7 Responses

  1. শিমুল সালাহ্উদ্দিন says:

    দারুণ।। পুরাটা আবৃত্তি করতে ইচ্ছা করে। আর্টস কে ধন্যবাদ। হোয়াট এ চয়েস…!

  2. সুবল says:

    ভাল, কিন্তু মূল প্রচ্ছদের উপর বড় বড় হরফে আবারো নাম লিখে দেয়া হল কেন বুঝতে পারলাম না। মূল প্রচ্ছদটা কি অবিকৃত রেখে দেয়া যেত না?

    পিডিএফ কপির জন্য ধন্যবাদ।

  3. আহমাদ মাযহার says:

    ‘উদ্ভ্রান্ত প্রেম’ বইটির একাধিক সংস্করণ বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র, ঢাকা থেকে প্রকাশিত হয়েছিল বছর পনের আগে। বইটির একটি ভূমিকা লিখেছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক আহমদ কবির। বইটির দামও বেশি নয়। বাংলা সাহিত্যের একটি ব্যতিক্রমধর্মী বই এটি। সম্ভবত এখনও পাওয়া যায়।

  4. গৌতম বসুমল্লিক says:

    চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায়ের (১৮৪৯— ১৯২২) পারিবারিক আদি নিবাস খাগড়া-মুর্শিদাবাদ। পিতামহ রামচন্দ্র ও পিতা বিশ্বেশ্বর মুখোপাধ্যায় দু’জনেই যুক্ত ছিলেন রেশম ব্যবসার সঙ্গে। চন্দ্রশেখর মুখোপাধ্যায়ের প্রাথমিক শিক্ষা প্রথমে ঠাকুরদাস বিদ্যারত্নের টোলে। পরে তিনি ভর্তি হন বহরমপুর কলেজিয়েট স্কুলে। ১৮৬৬-তে সেখান থেকে দ্বিতীয় বিভাগে এনট্র্যান্স পাশ করে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে ১৮৭২-এ বিএ পাশ করেন।
    প্রথমে কিছু কাল বহরমপুর স্কুল ও রাজশাহীর পুঁটিয়া হাই স্কুলে শিক্ষকতা করেন। পরে আবার প্রেসিডেন্সি থেকে বিএল পাশ করে ওকালতি আরম্ভ করেন। বহরমপুর আদালত ও কলকাতা হাইকোর্টে প্র্যাকটিস করলেও পসার জমাতে পারেননি। শেষে, কাশিমবাজারের মহারাজা মণীন্দ্রচন্দ্র নন্দী তাঁকে উপাসনা পত্রিকার সম্পাদক করে নিয়ে আসেন। এবং জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি কাশিমবাজার রাজবাড়ি থেকে মাসিক ৫০ টাকা বৃত্তিও পেয়েছেন।

  5. তাসনীম says:

    ধন্যবাদ আপনাদের। আপনাদের ই-বুক থেকে বেশ কিছু বই ডাউনলোড করলাম।

  6. Nayamot says:

    ভাল লেগেছে ।

  7. নিয়াজ says:

    উদ্ভ্রান্ত প্রেম বইটি কোনভাবেই ডাউনলোড দিতে পারছি না। প্লিজ হেল্প।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.