কবিতা

লিপি নাসরিন-এর ভালোবাসার বাজেট ও অন্যান্য

লিপি নাসরিন | 22 May , 2019  


মূর্তি মানবী

রাত্রির প্রিয় ঘুমের মত সৌন্দর্য আঁচলে ঢেকে বলেছিলাম,
কোন এক কোজাগরী পূর্ণিমায়-
তুমি আমার জন্য জ্যোৎস্নার পদ্ম আনবে,
আমি নিঃশব্দ মাতঙ্গে সেদিন গাঙ্গেয় উপত্যকায়-
প্রেমের প্লাবন সৃষ্টি করবো।
আমি উর্বর ভূমি হবো,
মাটি কর্ষণে, অঝোর ধারায় বৃষ্টিতে সবুজ শস্য ক্ষেত্রের
বিস্তীর্ণ প্লান্তর জুড়ে মায়াময় রূপদৃশ্য হবো,
হবো মহাকাব্যের শব্দ ব্যঞ্জনা।
আমি সেই জ্যোৎস্না পদ্মের অপেক্ষায়-
প্রতি অমাবস্যা শেষে মূর্তি থেকে মানবী হই…!

সমাচ্ছন্ন ভোর

ঝরা পাতা ঘুমায়
কার পুষ্পদলে?
একটি আনন্দ অধিকার হারায়
স্বরবৃত্তের মৌন আলিঙ্গনে।
একটি প্রজাপতি দূর মল্লিকা বনে
রাতের গভীরে সে জেগে রয়,
তখন সব সৌন্দর্য খুলে রাখে
নক্ষত্রের পঙক্তি ঝরে পড়ে রাতময়।
অতঃপর এক পান্না দ্বীপের ক্লান্ত প্রবাল
অলঙ্কার গড়ে স্রোতস্বীনির তরঙ্গ ভাঁজে,
ভুলে যায় নিশি জেগে আছে শৈবাল
গড়বে বসত ভুল প্রেমে অধিকার যেচে।
নাভীমূল থেকে বক্ষে উন্মুক্ত বৃন্তে
সহস্রাব্দ সে ভাঙা আর গড়া,
আধো চাঁদ জাগে নীরব বিষণ্ণ একাকী বনে
মাঝরাতে সঙ্গীহীন ক্লান্ত বিমূঢ় জনা।
নিশিভোর হয় সময় গুণে ব্যগ্র
রাতের শেষ পাখি শেষ চুম্বনে,
ফিরে যায় জাগিয়ে কোলাহল সমগ্র
এবার সময় আনন্দ সঙ্গম অবগাহনে।
তারপর থেমে যায় কোলাহলের কান্না
সবকিছু মিশে রয় সোনালী রশ্মির বুননে,
নিভৃতে বুনে চলে আদিম ভাবনা
গভীরে মায়ার ক্ষত কাঁদে।
নিসর্গের আর্দ্রতা শুষে নিয়ে
রাতের ক্লান্তি ঝেড়ে ছুটে চলে রোদ,
কোন অচেনা বিভুঁয়ে জোনাকি বসত গড়ে
নিজেকে পুড়িয়ে দিতে অন্ধকারে আলোকবোধ।
সমস্ত বিষাদ মিলিয়ে দিয়ে হাওয়ায়
পাতার মুকুট নাচে খুলে সজ্জিত মৌলি
ক্লান্তি ভাঙে আড়মোড়া ঘায়ে সুষমা সময়
দূরবর্তী জেগে রয় এক অনুপম শৈলী।

ভালবাসার বাজেট

ভালবাসায় ইদানীং খুব ঘাটতি
শেষ অর্থবছরে যে বাজেট করেছিলাম
তাতে উদ্বৃত্ত ধরেছিলাম নীল চিঠি,শরতের আকাশ-
আর চোখে চোখে কথা,
কিন্তু বাজেট বাস্তবায়নে দেখলাম
সেটি তোমার জন্য যথেষ্ট নয়,
বললে, এটাতে কি ভালবাসা হয়?
সে বাজেট দেখে তুমি ভীষণ ক্ষ্যাপা
চাইলে আরক্তিম ঠোঁট, মসৃণ চিবুক আর বাহুর নগ্নতা ।
বললাম, অসম্ভব!
এটি আমার জন্য বাড়তি করারোপ
আমি ওষ্ঠযুগলের কাছে পারবো না চাইতে
তোমার জন্য আর্দ্র চুম্বন,
মসৃণ চিবুককে পারবো না বলতে
চাই লকলকে জিহ্বার দুরন্ত আগ্রাসন,
আর উন্মুক্ত বাহুতে বাহুর সংঘর্ষে
ছাই চাপা আগুনের নিদারুণ প্রজ্জ্বলন।
তাহলে থাক অধিবেশন মুলতবি
পরের বছর হিসেব কষে দেখি,
তোমাতে আমাতে ভালবাসার ঘাটতি
নাকি উদ্বৃত্তের মাখামাখি।


3 Responses

  1. সামিহা says:

    খুব সুন্দর কবিতা, মন ছুঁয়ে যায়, প্রেম-ভালোবাসা সবার জীবনে আসে না, যাদের জীবনে আসে এবং যারা ধরে রাখতে পারে তাদের জীবন সার্থক।

  2. Biroda Roy says:

    ভাল লাগলো খুবই কবিতা পড়ে। ” ভুলে যায় নিশি জেগে আছে শৈবাল,গড়বে বসত ভুল প্রেমে অধিকার যেচে।” ” হবো মহাকাব্যের শব্দ ব্যঞ্জনা।” লাইনগুলো কাব্যিক দ্যুতি ছড়ায়।

    • Lipi Nasrin says:

      কবিতা পড়ে মন্তব্য করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.