বইয়ের আলোচনা

একিলিসের আদর্শ : মহাজীবনের এক সিম্ফনি

সাইফ বরকতুল্লাহ | 27 Feb , 2019  


শুরুতে ছিল শুধুই এক ধাঁধা। আর সেই ধাঁধা ছিল এলিয়ার জেনোর কাছে। কিন্তু তিনি জানতেন না এটি ছড়িয়ে পড়বে এমন সব ভাষায়, তখনও পর্যন্ত যেগুলোর জন্মই হয়নি। শুরুতে এটি ছিল নিছকই এক গাণিতিক খেলা, যার না ছিল বাস্তবতা, না ছিল জীবন। কিন্তু তরুণ প্রজন্মের প্রতিভাবান কলোম্বিয় কথাসাহিত্যিক পাউল ব্রিতোর জাদুকরি স্পর্শে তা কেবল বাস্তব হয়ে উঠেনি, উঠল জীবন্ত। যেমন পাউল ব্রিতো লিখেছেন, ‘একিলিস আর কচ্ছপের মধ্যেকার দূরত্ব যত কমতে থাকলো, প্রতিযোগিতা তত বেশি সুক্ষ্মতা হারিয়ে ফেলে। একিলিসের জীবন ক্ষয় হয়ে যায় তুচ্ছ আর গৌণ সব বিষয়ে। জীবনকে আনন্দে ভরিয়ে তুলতেই তার যত তোড়জোড়, যৌবনে যে আধ্যাত্মিক আনন্দ তার কাঙ্ক্ষিত ছিল তাতে আর মন নেই। (একিলিসের আদর্শ, খুঁটিনাটি, পৃষ্ঠা ৩১)

মানসিক বাস্তবতা ও জীবনের বহির্বাস্তবার যাবতীয় উপাদান নিয়ে একিলিসের আদর্শ গ্রন্থের অণুগল্পগুলোর প্রতিটি যেমন স্বয়ংসম্পূর্ণ, তেমনি তা গড়ে তুলেছে মহাজীবনের এক সিম্ফনি। যেমন লেখক লিখেছেন, ‘আশা হচ্ছে এমন কিছুর এক স্থায়ী সংকেত যা ঘটবে প্রায়। একিলিস সেই আশাটা অনুভব করলো, যদিও সেটা সে ভোগ করতে পারে না। সাধারণ জ্ঞান আমাদেরকে বলে যে যদি প্রতিযোগিতার শুরুতে তুমি সংকেতের সূচনা শুনতে পাও তাহলে এটা যৌক্তিক যে তুমি লক্ষ্যে পৌঁছার সংকেত পাও।’ (একিলিসের আদর্শ, সংকেতগুলো, পৃষ্ঠা ৭৪)


একিলিসের আদর্শ গ্রন্থটিতে গল্পগুলো জীবনবোধের নতুন চিন্তার ভুবনে নিয়ে যাবে। গুল্পগুলো পড়লে নতুন ভাবনার দুয়ার খুলবে। যেমন লেখক লিখেছেন-‘ মানুষ যখন পৃথিবীর শেষ সময়ে এসে উপস্থিত হবে তখন যা কিছু সে বয়ে এনেছিল তা বাদ পড়ে যাবে। এমনকি নিজেদের পা-ও। নিজেদের পদক্ষেপের সাথে মিশে যাবে। মানুষের পদচিহ্ন হয়ে উঠবে সাপের পথরেখার মতোই।’ (একিলিসের আদর্শ, স্লাইড, পৃষ্ঠা ১২৪)

একিলিসের আদর্শ গ্রন্থ সম্পর্কে অনুবাদ রাজু আলাউদ্দিন লিখেছেন, ‘যুক্তি ও কল্পনার বিভেদ বিলুপ্ত করে দিয়ে রীতিমত অবাস্তব একটি ধাঁধাকে কাল্পনিক সব ঘটনার মাধ্যমে আমাদের জীবনের অন্তর্নিহিত ও অদৃশ্য বাস্তবতাকে সুকৌশলে উন্মোচন করেন মূল লেখক পাউল ব্রিতো। কলোম্বিয়ার এই তরুণ কথাসাহিত্যিক ১০১টি মিতাখ্যানের মাধ্যমে তাঁর জাদুকরি ভাষা ও সৃষ্টির কুহকে বন্দি করে রাখেন পাঠককে।


পাঠ উন্মোচন :
একিলিসের আদর্শ গ্রন্থের পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বাতিঘরে পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠানে একিলিসের আদর্শ গ্রন্থটির মূল লেখক পাউল ব্রিতো আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন। স্প্যানিশ থেকে বাংলায় অনুবাদ করেছেন কবি, প্রাবন্ধিক ও অনুবাদক রাজু আলাউদ্দিন।

পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠানে পাউল ব্রিতো বলেন, শৈশব থেকেই একিলিস ও কচ্ছপ বিষয়ক বিখ্যাত কূটাভাসটি আমার মধ্যে বহু প্রশ্নের জন্ম দিয়েছিল। সবসময়ই আমি এ নিয়ে লিখতে চেয়েছি। কিন্তু অণুগল্পের দেখা পাওয়ার আগ পর্যন্ত লিখবার যথাযথ কাঠামো খুঁজে পাচ্ছিলাম না। আবিষ্কারের লক্ষ্যে সাহিত্যের এই শাখাটিকেই আমার কাছে আদর্শ বলে মনে হয়েছিল।

একিলিসের আদর্শ গ্রন্থটি যেভাবে লেখা হলো-সে সম্পর্কে পাউল ব্রিতো বলেন, পৃথিবী সম্পর্কে বহুদিন ধরে তৈরি করা আমার ব্যক্তিগত তত্বই এই বইটিকে পুষ্টি যুগিয়েছে এবং আমি একে ধারাবাহিকতার তত্ব বলে অভিহিত করি। বইটি লেখার শুরুতে আমি প্রতিদিন পাঁচটি করে অণুগল্প লিখতাম। পরে সেটা কমে এসে কয়েক ফোটায় গিয়ে দাঁড়াল। বহুবার আমার মনে হয়েছে এ যেন একিলিসের মতোই এক অসম্ভব প্রতিযোগিতা। কারণ আমি যত বেশি ১০১টি অণুগল্প লেখার লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে গেছি, তত বেশি আমাকে বর্জন করতে হয়েছে। একাধিক মুহূর্তে আমি ও আমার বইয়ের কাঠামো কূটাভাসেরই নামান্তর হয়ে উঠেছিল।


পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন কবি আসাদ মান্নান, কথাসাহিত্যিক জাকির তালুকদার, কবি কুমার চক্রবর্তী, লেখক রিফাত মুনীম, কবি আলফ্রেড খোকন, অনুবাদক আনিসুজ্জামান। বইটির অনুবাদ সম্পর্কে ও নিজের লেখালেখি নিয়ে বক্তব্য রাখেন রাজু আলাউদ্দিন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন রেজা ঘটক। অনুষ্ঠানে বক্তারা গ্রন্থটির প্রশংসা করেন এবং বহুল প্রচার কামনা করেন।

একিলিসের আদর্শ
লেখক : পাউল ব্রিতো
স্প্যানিশ থেকে অনুবাদ : রাজু আলাউদ্দিন
প্রকাশন : বাতিঘর।
প্রচ্ছদ : সব্যসাচী হাজরা।
দাম : ২৪০ টাকা।
Flag Counter


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.