সঙ্গীত

গায়িকা সাহসিকা টোভ লোর স্বতন্ত্র স্বর

ফাহমিদা জামান ফ্লোরা | 6 Jul , 2018  

সুইডিশ গায়িকা এবং গীতিকার টোভ লো সারা বিশ্বে “সুইডিশ সেরা ডার্ক পপ শিল্পী” হিসেবে পরিচিত। ৩০ বছর বয়সী সুইডিশ এই পপ তারকা জন্মেছেন এবং বেড়ে উঠেছেন স্টকহোমের উত্তরের জেলা ড্যান্ডেরাইড-এর জোরশলমে, যে অঞ্চলটি মূলত সাংগীতিক ঐতিহ্যবাহী স্কুল রিটমাস মিউজিকারজিমনাসেট-এর জন্য বিখ্যাত।

২০০৬ এ তিনি প্রথম তার রক ব্যান্ড “ট্রিমব্লেবি” গঠন করেন। ট্রিমব্লেবি ভেঙে যাওয়ার পর, তিনি গীতিকার হিসেবে সফলভাবে আত্মপ্রকাশ করেন এবং ২০১১ সালে ওয়ারনার/চ্যাপেল মিউজিক-এর সঙ্গে প্রকাশনা চুক্তিতে আবন্ধ হন। লো আলেকজান্ডার ক্রোনলান্ড, ম্যাক্স মারটিন, জেনোম্যানিয়ার মতো বিখ্যাত সংগীত পরিচালকদের সাথে কাজ করেছেন তিনি। তার বৈচিত্র্যময় রেকর্ডিং এবং কম্পজিশনের জন্য অল্প সময়ের মধ্যে সফল গীতিকার হয়ে ওঠেন।

২০১৪ তে প্রকাশিত এ্যালবাম “কুইন অফ দ্যা ক্লাউডস”-এর মাধ্যমে তিনি রাতারাতি তারকা বনে যান। এরপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয় নি। এই এ্যালবামের “হ্যাভিটস (স্টে হাই)” গানটি ইউএস বিলবোর্ড টপ ১০০-এর ৩ নম্বরে উঠে আসে। পরবর্তীতে তার প্রকাশিত এ্যালবাম “লেডি উড”,”কুল গার্ল”,”ব্লু লিপস” জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছায়। তার একক কাজ ছাড়াও লর্ডের “হোমমেড ডাইনামাইট” এবং এলি গোল্ডিং-এর “লাভ মি লাইক ইউ ডু ” ছাড়াও অ্যালেসো, নিক জোনাস, সেভেন লায়ন্স, ব্রোডস, ম্যারুন ফাইভ এবং কোল্ডপ্লের সাথে কাজ করেছেন।

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের স্বনামধন্য এ পপ গায়িকার গানের কথাগুলোয় স্পষ্ট ছাপ মিলে নারী অধিকার এবং স্বাধীনতার। তিনি নিজেকে বরাবরই একজন নারীবাদী হিসেবে পরিচয় দিতে পছন্দ করেন। নিউ ইয়র্ক টাইমস ম্যাগাজিনে দেওয়া তার একটি সাক্ষাৎকারে সমসাময়িক কিছু বিষয় নিয়ে তিনি কথা বলেন,যার মধ্যে একটি ছিলো আমেরিকা এবং সুইডেনের নারীবাদের পার্থক্য। টোব লো বলেন, সুইডেনে নিজেকে নারীবাদী হিসেবে পরিচয় দেওয়াটা স্বাভাবিক, বরং “আপনি নারীবাদী নন” বলাটা লজ্জাজনক। অন্যদিকে আমেরিকা নারীবাদকে এখনও সেভাবে গ্রহণ করতে পারে নি। সেখানে “আপনি নারীবাদী” বলা খানিকটা আশঙ্কাজনক।”
তাকে র‌্যাডিক্যাল এবং লিবারেল ফ্যামিনিজমের মধ্যে পার্থক্য সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন,”তিনি মাঝেমধ্যেই এ বিষয়টি নিয়ে ভাবেন। আসলে কখনও কখনও মানুষের চোখ খুলতে র‌্যাডিক্যাল ফ্যামিনিজম দরকার তবে নারীবাদের মূল উদ্দেশ্য সমতা। তার গানে যৌনতার প্রভাব সম্পর্কে জানতে চাইলে লো বলেন,”হ্যাঁ,আমি খুব দৃঢ়তার সাথে বিশ্বাস করি পুরুষের মতো নারীর রয়েছে যৌন অধিকার এবং যৌনতার স্বাভাবিক প্রকাশ কোনো অপরাধ নয়।”
টোব লো-এর এ্যালবাম “লেডি উড” নিয়ে অনেক আলোচনা এবং সমালোচনা হয়েছে। এক ভক্ত তার কাছে জানতে চায়, এ শব্দটি এবং গানটি দ্বারা কি ট্রান্সজেন্ডারের দিকে ইঙ্গিত করছে না? লো খুব বিচক্ষণতার সাথে বলেন,“আমি শারীরিক দিকে ইঙ্গিত করি নি শব্দটি দ্বারা। আপনি জানেন আমরা সাহসিকতা এবং শক্তি প্রসঙ্গে কথা বলার সময় বেশিরভাগই পুরুষতান্ত্রিক এবং পৌরুষ সম্পর্কিত শব্দ ব্যবহার করে থাকি এবং দুর্বলতম উদাহরণ হিসেবে নারীকে টেনে আনি। সুতরাং, আমাদেরও দরকার নারী এবং নারীর সাহসিকতা,শক্তি,স্বাধীনতা সম্পর্কিত নতুন কিছু শব্দ।”
নারীবাদীতার পাশাপাশি মানবতাবাদী হিসেবেও রয়েছে টোভ লোর পরিচিতি। তিনি আমেরিকায় অভিবাসীদের অধিকার আদায়ের আন্দোলনের সাথে সরাসরি জড়িত। তিনি বলেছিলেন,”আমি একজন আমেরিকান না, তো কি হয়েছে? আমি ট্রাম্পের এ ধরনের আক্কেলজ্ঞানহীন এবং অমানবিক সিদ্ধান্তের কঠোর বিরোধিতা করি।” তিনি মনে করেন মানুষ হিসেবে সকলের রয়েছে বেঁচে থাকার সমান অধিকার এবং তিনি কোনো বর্ডার দিয়ে দেশের ভূখণ্ড ভাগ করে মানুষকে আলাদা করার পক্ষে নন।

প্রেম,জীবন এবং ড্রাগের সংমিশ্রণে তার গানগুলো হয়ে উঠেছে অনন্য। সুইডিশ এই পপ গায়িকা তার নারীবাদী লিরিক এবং প্রগাঢ়, নিখুঁত এবং স্বতন্ত্র গায়কীর জন্য বিশেষভাবে পরিচিত। গানের পাশাপাশি নারীবাদী এবং মানবতাবাদী বিভিন্ন আন্দোলনে তিনি এখনো অব্যাহত রেখেছেন তার গীতিময় পদচারণা।
Flag Counter


2 Responses

  1. Nur islam says:

    সুইডিস পপ গায়িকা ও গীতিকার টোভ লো সম্পর্কে অামার কোন ধারণা ছিলনা,লেখাটা পড়ে তার সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারলাম। টোভ লোর খোলামেলা উপস্থাপনা দেখে অামাদের মত কনজারভেটিভ সমাজের মানুষের কাছে দৃষ্টিকটু মনে হতে পারে, কিন্ত এটাও যে তার লড়াইয়ের অংশ তা তিনি তার কাজ দিয়ে প্রমাণ করে দিয়েছেন।

  2. তকি তাজওয়ার says:

    দারুণ লিখেছো। মানবতাবাদী সাহসী টোভ লোর মধ্যে তোমার প্রতিচ্ছবি দেখতে পাই। এগিয়ে যাও। শুভকামনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.