গল্প

প্রকাশ বিশ্বাসের অনুগল্প: কারাগার

prokash_biswas | 19 Feb , 2018  

প্রিজন ভ্যানের কেবিনে কারাগার থেকে আদালতে বয়ে নেয়া বেশ কয়েকজন
বিচারপ্রার্থী লোক। আসামী হিসাবে অপেক্ষাকৃত ছোট শহরের কারাগার থেকে
রাজধানীর আদালতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তাদের মামলার শুনানির তারিখে। এদের
মধ্যে নারী, পুরুষ এমনকি শিশুও রয়েছে।
রাতের শেষভাগ। ফাঁকা রাস্তায় ভ্যানটি চলছে দ্রুত লয়ে। গাড়ির যান্ত্রিক
শব্দ ছাড়া আর কোনো সচল শব্দ নেই। সরু জানালা বেয়ে বাইরে থেকে জ্যোৎস্নার
আলো ঠিকরে পড়ছে গাড়ির ভেতরে।
নতুন জেগে ওঠা নদী চরের ধান কাটা মামলার আসামী তারা। এদের মধ্যে কারো
কারো মুখে বেশ একটা ধারালো ভাব থাকলেও চোখে লেগে রয়েছে রাজ্যের বিষন্নতা।
এ সব লোকজনের মধ্যে অধিকাংশই এ মূহূর্তে বেঞ্চিতে বসে ঘুমে ঢুলছে যেন
মহাকাল থেকে সময় যন্ত্রে চড়ে এরা হঠাৎ জানালা ফুঁড়ে এই ভ্যানের ভেতরে এসে
জালে আটকানো মাছের মতো নিঃসাড় পড়ে আছে।
এদের মধ্যে এক যুবতী নারীর মাছের মতো চোখ, যেহেতু তার চোখের পাতা পড়ছে
না, লেগেও আসছে না। তার চোখ আসলে এমনই যে, যে কোন সময় এই চোখ থেকে
আশপাশের জঙ্গল আর শুকনো লতা পাতায় দাবানল লেগে যেতে পারে।

কোর্টের উকিল বলে দিয়েছে যে তারা যেন কেউ দোষ স্বীকার না করে বিচারকের
প্রশ্নের উত্তরে। মাছ চোখের এই নারী ভাবছে সে দোষ স্বীকার করবে। কেননা
এই দুনিয়ার চাইতে কারাগার ভালো জায়গা। সেখানে স্বাধীনতা আছে, মুক্তি
আছে। জগৎ ঘুরে কাজ করতে করতে এই অভিজ্ঞতাই সে সঞ্চয় করেছে।
ভোর হয়ে আসছে। কুয়াশা মাখানো আকাশ ছোঁয়া ভবনগুলো আড়মোড়া ভেঙ্গে এই এক্ষণই
চোখ মেলল যেন। অতঃপর রাজধানীর নাগরিক জঞ্জালে ঢুকে পড়ে ভ্যানটি।
কিছুক্ষণের মধ্যেই ভ্যানটি গন্তব্যে পৌঁছে যায়।

Flag Counter


5 Responses

  1. NAZMA SULTANA says:

    Excellent ,,,,,,Reading this I’m feeling empty, gloomy
    It’s tiny , but not in depth. Thanks for such a nice story.

  2. parvez says:

    প্রতিদিনের বাস্তবতার প্রতিচ্ছবি এ গল্পে ফুটে উঠেছে। আমি আইন পেশায় থেকে এগুলো উপলব্ধি করেছি। মানুষ বিচার পায় না। এ রাষ্ট্র কাঠামোতে বিচারের বানী নিভৃতে কাঁদে। ধন্যবাদ লেখককে।

  3. S.M. Sajjad Hossain says:

    মানুষ আসলেই কতটা পরাধীন সেটা ফুটে উঠেছে গল্পে। আর মেয়ে মানুষ সে তো মানুষ ই না। সে আলাদা এক জীব! তার চোখে সেই অভিব্যাক্তিই ফুটে উঠেছে। এই শ্রেণীর মানুষদের কী কোনোদিন মুক্তি মিলবে না! খুব ভালো লেগেছে লেখাটি পরে। অনেক ধন্যবাদ লেখককে।

  4. jharna says:

    নারীদের প্রতিবাদ দাবানল হয়ে জ্বলে উঠুক। পরমানু গল্পটি ভালো লেগেছে।

  5. palash says:

    ক্ষুদ্র অবয়বে আমাদের ট্রাজিডি ফুটে উঠেছে। আমাদের মতো রাষ্ট্রে বিচার বিভাগ কোনকালেও জনগনের পক্ষে হবে না। রাষ্ট্রের পুরো খোলনলচেই পাল্টে ফেলতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.