কবিতা

অলভী সরকারের পাঁচটি চৌপদী

অলভী সরকার | 11 Nov , 2017  

১.
মাছেরা আকাশে ওড়ে নাকি? মানুষেরা
যা খুশি তাই নিচ্ছে ভেবে তুমুল সৃষ্টিছাড়া!
এ তো গল্প, নিছক অল্প, থাকতেই পারে ডানা!
গল্পের মাছ উড়তেই পারে। মানুষের ওড়া মানা।

২.
একটি পা চৌকাঠে রেখে দাঁড়িয়ে আছি ঘরে
সময় এখন অল্প ভীষণ নিঃস্ব ভরদুপুরে।
প্রবল প্রেমে আহত হই প্রবল ঘৃণার মতো,
মরবে জেনেও মানুষগুলো সারিয়ে তুলছে ক্ষত।

৩.
শুক্রবারের দিনগুলোতে কোথায় গিয়েছিলে?
তোমার জন্য সোমেশ্বরী পাল্টে গেল ঝিলে!
সহস্র দিন চিত্রা হরিণ মেঘশিরীষের মাঠে
আমার শহর দেখছে নহর সোম-ঈশ্বরী ঘাটে।

৪.
দু এক কদম দূরেই তুমি দাঁড়িয়ে ছিলে একা
চোখ ফেরালেই তাকানো যায়, চোখ ফেরালেই দেখা।
তবুও আমি ফেরাই নি চোখ, আগাই নি এক পা,
অন্ধ প্রজার দেশে হলাম রাম গরুড়ের ছা!

৫.
কঠিন থেকে সহজ হলে বড্ড বেমানান,
তুমি বরং কঠিন ছিলে ভালো। শিরস্ত্রাণ
এক ঝটকায় খুলতে পারো, এক নিমেষে নত;
এখন আমার ঘুমিয়ে পড়াই সঠিক ও সংগত।

Flag Counter


1 Response

  1. শিমুল সালাহ্উদ্দিন says:

    ভালো লাগলো সহজ ছন্দের কাজ। নি আলাদা ভাবে কোন অর্থবোধক শব্দ নয়। তাই, “তবুও আমি ফেরাই নি চোখ, আগাই নি এক পা,
    অন্ধ প্রজার দেশে হলাম রাম গরুড়ের ছা!” না লিখে “তবুও আমি ফেরাইনি চোখ, আগাইনি এক পা,
    অন্ধ প্রজার দেশে হলাম রাম গরুড়ের ছা!” এমন লেখা উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.