প্রণম্য পাণিণি ১৪২৩

মুহম্মদ নূরুল হুদা | ১৪ এপ্রিল ২০১৬ ২:২১ পূর্বাহ্ন

02_boishakh_mongol-sovajatra_140415_0020.jpgশুরু নেই শেষ নেই। খণ্ড ও অখণ্ড নেই ॥
আছে শুধু অনন্ত দহন। আছে শুধু অনন্ত গহন ॥

বস্তুর গভীরে আছে অবস্তুর কণা।
গতির গভীরে আছে যতিলগ্ন ফণা ॥
জল বলে, আমি ঢেউ। নদী বায় দাঁড়।
জলেস্থলে নভোনীলে আমার পাহাড় ॥

কাল থেকে কালান্তরে এভাবেই হাঁটি।
আমার বাঙালি চুলে সিঁথি পরিপাটি ॥
বাহারি গামছাখানি বেঁধেছি মাথায়।
নগরে মুখোশ মুখে নববর্ষ যায় ॥

কৃতি ভেঙ্গে এভাবেই নতুন সুকৃতি।
কেউ বলে উদ্ভাবনী, কেউ-বা বিকৃতি ॥
তাইকি পান্তার থালে পুঁটি বা ইলিশ।
সুযোগ পেলেই তুই পাতে তুলে দিস ॥?

এভাবে বদলে ফেলে ধানদুর্বা-রুচি,
লোমশ তোয়ালে মেলে গ্রীষ্ম-ঘাম মুছি ॥
আলপথে গলিপথে হাঁটি খালি পায়।
উলুকঝুলুক চিত্ত নৃত্যপর নায় ॥

বাদ্য বাজে খাদ্য সাজে নানান বরণ।
ব্রহ্মাণ্ড ভ্রমণ সেরে হরেক ধরন ॥
এনেছি বরণ করে তুমুল তামাসা।
সঙ্গে আছে বাঙালির বাহারি বাতাসা ॥

রাক্ষস-খোক্ষস আছে, আছে দৈত্য-দানো।
হালখাতা হালতক চলমান, মানো ॥
মিল আছে মিশ আছে, কোথাও নালিশ।
সরস মিঠাই মুখে কোথাও শালিশ্ ॥

গান গাই, পান খাই, জান আঁশনাই।
হালের বলদ নাই, চাষাবাদ নাই ॥
লেখালেখি দেখাদেখি মুখে, ফেসবুকে।
হরিষে বিষাদে তবু বাঙালিরা সুখে ॥?

তাগড়া বাহুর সাথে সেয়ানা বগল।
বিলঝিল নদীনালা দরিয়া দখল ॥
সাঙ্গ করে গড়ে তুলি নিজের নগর।?
বাঙালির ঘর আজ বিশ্ব চরাচর ॥

সতত সচল যদি, প্রচল মানিনি।
আমার প্রণম্য আজো অদম্য পাণিণি ॥

খসড়া ৩০ চৈত্র ১৪২২/ ১৩ এপ্রিল ২০১৬
Flag Counter

সর্বাধিক পঠিত

প্রতিক্রিয়া (7) »

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিপাশা চক্রবর্তী — এপ্রিল ১৪, ২০১৬ @ ২:৪৪ পূর্বাহ্ন

      এককথায় দুর্দান্ত। শব্দ ,ছন্দ ও সমসাময়িক ব্যাপারগুলো মিলে কবির মুন্সিয়ানার পরিচয় পাওয়া যায়। কবিতা সম্পর্কে আমার বিশেষ ধারণা নেই, এটা নিশ্চয়ই কোনো ধরনের সনেট। কোন রীতিতে কবি এটা লিখেছেন তা জানার ইচ্ছে রইল।

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন humayun sadeque chowdhury — এপ্রিল ১৪, ২০১৬ @ ১:৩৫ অপরাহ্ন

      fine!thanks poet .

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন Md Mehedi Hasan — এপ্রিল ১৪, ২০১৬ @ ৮:২৭ অপরাহ্ন

      Happy to have read.

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল — এপ্রিল ১৫, ২০১৬ @ ৯:৩৬ পূর্বাহ্ন

      ভাল লাগলো, হুদা ভাই।

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন কাজী মিনহাজুল আলম — এপ্রিল ১৫, ২০১৬ @ ২:৫১ অপরাহ্ন

      ১৪ মাত্রার পয়ার ছন্দের কবিতা পাঠান্তে বহুদিন পর পুঁথি সাহিত্যর স্বাদ পেলাম। আধুনিক বিষয়কে বাংলা সাহিত্যের উন্মেষকালীন ছাঁচে ঢেলে প্রকাশের মুন্সিয়ানা কবির সহজাত। তাই তিনি জাতিসত্তা বিনির্মাণের প্রধান কবি।
      কবির সচল সরব দীর্ঘায়ু কামনা করি।

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন রাজু চাকলাদার — এপ্রিল ১৬, ২০১৬ @ ১:২৩ অপরাহ্ন

      চমৎকার, দুর্দান্ত মননশীল অসাধারণ এক নান্দনিক কবিতা।

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন Kh. Lutful Kabir — এপ্রিল ১৬, ২০১৬ @ ৩:১২ অপরাহ্ন

      ছন্দের জাদুকরী রূপে মনে হল অনেক অনেক দিন পরে একটি সুন্দর অসাধারণ কবিতা পড়লাম । কবিকে হাজার সালাম ।

আর এস এস

আপনার প্রতিক্রিয়া জানান

 
প্রতিক্রিয়া লেখার সময় লক্ষ্য রাখুন:
১. ছদ্মনামে করা প্রতিক্রিয়া এবং ব্যক্তিগত পরিচয়ের সূত্রে করা প্রতিক্রিয়া গৃহীত হবে না। বিষয়সংশ্লিষ্ট প্রতিক্রিয়া জানান।
২. বাংলা লেখায় ইংরেজিতে প্রতিক্রিয়া বা রোমান হরফে লেখা বাংলা প্রতিক্রিয়া গৃহীত হবে না।
৩. পেস্ট করা বিজয়-এ লিখিত বাংলা প্রতিক্রিয়া ব্রাউজারের কারণে রোমান হরফে দেখা যেতে পারে। তাতে সমস্যা নেই।
 


Disclaimer & Privacy Policy  |  About us  |  Contact us

© bdnews24.com