কুমার চক্রবর্তীর গুচ্ছ কবিতা

কুমার চক্রবর্তী | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ১১:৪০ অপরাহ্ন

ভুট্টাখেতের স্তব্ধতায়

এখানে রোদ ঘন ও আঠালো,
আকাশ আর সমতল রচনা করেছে যোগচিহ্নহীন সম্পর্কের চিত্ররূপ।
আমাদের কেউ ছিল না , না জল-হাওয়া না মেঘস্তূপ,
তবু অজানা বিন্দুগুলোকে ধরতে গিয়ে আমরা পৌঁছে গিয়েছিলাম
ভুট্টাখেতের সরল প্রান্তরেখায়। আমরা জেনেছিলাম―
জীবন এক আলো আর ছায়া যা মনে করিয়ে দেয়
নিঃসঙ্গতা, আর নির্নিমেষ
জল আর পাতালের বিরামহীন বিস্তার
যখন নেমে আসে স্তব্ধতা
যখন নিমগ্নতা অধিকার করে বসে
আর আমরা ধনেশপাখির দিকে নিবিড়ভাবে তাকিয়ে খুঁজি―
আত্ম ও অমরত্বের স্থিরসন্ধান।

উন্মোচিত হচ্ছে শ্লথতা, ওজনহীন হয়ে আসা বস্তুপুঞ্জ,
গুল্মঝোপের মাঝে নির্বিষ হয়ে যাওয়া পোঁকার আনুমানিক স্থবিরতা,
গলছে সূর্য, গলছে যাবতীয় শুক্রাণু আর ডিম্বাণু, আর
ধাতুতে তৈরি হচ্ছে স্ফটিকের জাদুঘর।

আজ এই রোদের লিমেরিকে
তোমার চিহ্নগুলো তুমি লুকিয়ে ফেলেছো চিরন্তনতার বাক্সে
যা তুমি পেয়েছিলে সময়ের ভেতর অন্তর্লীন হয়ে থাকা নির্জনতা থেকে,
মহান প্রাজ্ঞতা আর দৃষ্টির ভেদ্যতা
তুমি গ্রামোফোনের মতো করে বাজালে রোদ, রেখা আর রুদ্ধধ্বনি
আজ এই ভুট্টাখেতের স্তব্ধতায় তুমি দেখলে সেই রূপ
যা অভিমান আর সমূহ অস্পষ্টতা নিয়ে তোমারই দিকে চলে গেছে তখন।

কে বলে এসেছি

এসেছি তো, এসেছি কি?
দ্বিপ্রহরে রয়েছি আগুনে, এদিকে বেলা যে পড়ে যায়
যায় নাকি? সরে যায় তোমার ছায়াও,
মেঘ যায় স্পর্শাতীত ঘাটে,
ছিলে চিহ্ন, চিহ্নিত হয়েছো আজ,
অস্পষ্টতা অর্থময় হয়, হতে হতে অন্তর্ধান
আমিও চেয়েছি যেতে, একা,
যে পথে পিঁপড়েরাও আজ পাতালরেখায়,
গ্রীবার কাছেই আছে মৃত্যুর অদ্ভুত ভাষ্য
গূঢ় সব কায়দাকানুন, অট্টহাস্য,
বলে কিনা
নাস্তানাবুদ হও মুখর অস্তিত্বহীনে
হাঁসকল পড়ে আছে জীবনের ঋণে,
সব কিছু কদাচিৎ, পরবর্তী বলে কিছু নেই,
ভেতরে ফলেছে আজ নৈঃশব্দ্যের ঘাস, তাতে শুয়ে
একবার হেসেছিলে তুমি, তাতেই চেয়ারগুলো পড়ে গেছে
শ্রবণবধির হয়ে গিয়েছিল ইঁদুরেরা হেমন্তের মাঠে

এসেছি তো, এসেছি কি! কে বলে এসেছি?
আসা বলে কিছু নেই, সব স্মৃতি
জীবনের দিক থেকে, বিরতিতে বিরতিতে, অদ্ভুত ছায়ায়,
সংকেতের বিপরীতে, হাওয়ায় হাওয়ায়

আমাকে বলেছো তুমি

আমাকে বলেছো তুমি, এই জল অপসৃত
গভীরে রয়েছে ছায়া তার, অশ্রুপতনের দাগ
আমি ভেবে উদাসীন, তোমারই দিকে আজ
ঘুরিয়ে নিয়েছি ডানা, এইদিকে দীর্ঘ রেলপথ
অতীত মুগ্ধতা নিয়ে সরে যায়
অন্তহীন বাদুড়ের গান, চলে যায় জীবনের দল
স্তরভেদে এখানে এসেছে গুল্ম, কালস্রোতে
আমি তার ক্লোরোফিলে ধুয়ে নিই দেহ
নার্সিসাস বৃক্ষগুলো ঢুকে যায় মাথার কোটরে
আমাকে বলেছো তুমি এইদিকে যাও কোনো
অনন্ততৃষ্ণায়… তোমার ঋতুর কাছে
মৃত্যুফাঁদ রয়েছে বিছায়ে…

সব মানেহীন

সব মানেহীন শব্দ দিয়ে আজ কবিতা লিখি
লিখি অস্তিত্বহীনতা, উদ্বেগ আর অভ্রের নিরাশ্রয়ের গল্প।
যোগচিহ্নহীন অঙ্ক কষা যেন অনন্ত সিঁড়িপথে পা হারিয়ে ফেলা
ভাবো, টিলা আর লুকানো সরোবরের জন্যই
তোমার আয়তন বেড়ে যায়।
গোপন পথটির মানেহীনতা হলো―
হারানো তৃণক্ষেত্রের দিকে সে আমাদের সজোরে নিক্ষেপ করে
ঘাসেদের মানেহীনতা হলো―
তারা আমাদের উপলব্ধিগুলোকে অহমিকা দেয়
আর তোমার মানেহীনতা হলো―
অন্ধকারের ঠিক আগের স্টেশনটিতে তুমি ধাক্কা মেরে আমাকে
ফেলে রেখে যাও।

সমস্ত সঙ্গম আজ

প্রথম সঙ্গমের স্মৃতি ভুলে গেছি আজ
ভুলে গেছি সন্ধ্যানদীতীর
গুল্মের প্রভাতে আজ আমি যে অস্থির
কীভাবে যে আমি সত্য
ইঙ্গিতে থেমেছে যেইজন
তাকে নিয়ে সমস্ত কারণ
বহ্নি হয়, চিতা হয়,
অসম্ভব ভস্ম আয়োজিত
এখানেই ত্রস্ত, আর অধিক সম্মত
চিহ্ন গলে, ধাতু গলে, ঋতু গলে আজ
প্রবণতা শরীরের দাস
সমস্ত সঙ্গম আজ দ্বন্দ্ব, অনুপ্রাস

Flag Counter

প্রতিক্রিয়া (3) »

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন শিমুল সালাহ্উদ্দিন — সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৪ @ ১:৪৩ অপরাহ্ন

      মোহময় ভাষা ও আইডিয়া। দুর্দান্ত পাঠ অভিজ্ঞতা হলো। প্রণাম ও ভালোবাসা নিন কবি কুমার চক্রবর্তী।

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন kebla — সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৪ @ ৩:২৬ অপরাহ্ন

      bhalo-i to hoyese…he….half jibanananda quarter binoi….quarter shamsur…

    • প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন prangbasak — সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৪ @ ৯:২৮ অপরাহ্ন

      bahudin por aapnar kobita pore valo laglo…besh jibonto..obak hoye thaki pora seshe…valo thakunn..valo likhun…prangbasak/new delhi/india

আর এস এস

আপনার প্রতিক্রিয়া জানান

 
প্রতিক্রিয়া লেখার সময় লক্ষ্য রাখুন:
১. ছদ্মনামে করা প্রতিক্রিয়া এবং ব্যক্তিগত পরিচয়ের সূত্রে করা প্রতিক্রিয়া গৃহীত হবে না। বিষয়সংশ্লিষ্ট প্রতিক্রিয়া জানান।
২. বাংলা লেখায় ইংরেজিতে প্রতিক্রিয়া বা রোমান হরফে লেখা বাংলা প্রতিক্রিয়া গৃহীত হবে না।
৩. পেস্ট করা বিজয়-এ লিখিত বাংলা প্রতিক্রিয়া ব্রাউজারের কারণে রোমান হরফে দেখা যেতে পারে। তাতে সমস্যা নেই।
 


Disclaimer & Privacy Policy  |  About us  |  Contact us

© bdnews24.com