বুদ্ধদেব বসু-র একটি গদ্য কবিতা : দোকানিরা

ওমর শামস | ৩০ নভেম্বর ২০১৩ ১:৩৫ অপরাহ্ন


১. ভূমিকা :

এই নিবন্ধের বিষয় হচ্ছে, বুদ্ধদেব বসু-র একটি গদ্যকবিতা, “দোকানিরা”, একদিন চিরদিন ও অন্যান্য কবিতা, ১৯৭১। মূল কবিতাটিতে যাবার আগে একটু তথ্যপঞ্জী সংগ্রহ ও স্মরণ করা যাক। বাংলা ভাষার প্রথম গদ্যকবিতা, “শিশুতীর্থ”, ১৯৩১, লেখা হয় রবীন্দ্রনাথের কলমে। প্রকাশিত প্রথম গদ্যকবিতার বই “পুনশ্চ”,১৯৩২, রবীন্দ্রনাথ। শেষ বয়সে যে সব গদ্য কবিতা রবীন্দ্রনাথ লিখেছিলেন, বাংলা কবিতার ইতিহাসে তার গুরুত্ব অনস্বীকার্য। আমার বিচারে, “আমি” এবং “পৃথিবী” সেই ফসলের শ্রেষ্ঠ নজীর। মহাকবির হাতে প্রসূত হয়েও, বাংলা গদ্যকবিতা অবশেষে ঋজু, সবল, সাবালক হয়ে মাত্রাস্তনিত কবিতার সমকক্ষ রূপ পরিগ্রহ করেছিলো তিরিশের দু-জন কবির কলমে – জীবনানন্দ দাশ-এর হাতে আগে (১৯৩৫ – ১৯৫৪)১ ও বুদ্ধদেব বসু-র লেখায় একটু পরে (১৯৫২-১৯৭১)২ । (সম্পূর্ণ…)

ভঙ্গুর পৃথিবী ছেড়ে নক্ষত্রপানে

ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী | ২৮ নভেম্বর ২০১৩ ৮:৪৫ অপরাহ্ন

আমাদের এই এক পৃথিবী আছে– নীলসাগর আর সাদামেঘের আঁচড়ে তাকে অদ্ভুত সুন্দর দেখায়। অবশ্য এই সৌন্দর্য দূর থেকে দেখা– স্পেস থেকে তোলা ছবিতে এমনটি দেখা যায়। একদম মাটির ধূলির ধরাতে হয়তো সৌন্দর্য কিছুটা বিঘ্নিত হয়। আমাদের পরিপার্শ্বের অবস্থা সম্ভবত মোটেও সুন্দর কিছু নয়। দৈনন্দিন জীবনেও পৃথিবীর মহাশূন্যজ সৌন্দর্য নিয়ে ভাববার ফুরসত কই? (সম্পূর্ণ…)

‘মুনির আর্টিস্ট’ ও শিল্পী মনিরুল ইসলাম

প্রমা সঞ্চিতা অত্রি | ২৮ নভেম্বর ২০১৩ ৪:৪৯ অপরাহ্ন

বিকাল ৫টা বাজতে না বাজতেই শুরু হল লোকের আনাগোনা। প্রথম শো’তে জায়গা না পেয়ে বাইরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেল অনেককে। গত ২২শে নভেম্বর, শুক্রবার – এমনই এক চিত্র দেখা গেল ধানমণ্ডি ৭/এ-তে অবস্থিত ‘ঢাকা আর্ট সেন্টার’-এর তৃতীয় তলার স্ক্রিনিং রুমের সামনে। শিল্পী মনিরুল ইসলামকে নিয়ে নির্মিত তথ্যচিত্র ‘মুনির আর্টিস্ট’-এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী ছিল সেদিন। ৩৩ মিনিটের এই স্বল্পদৈর্ঘ্য তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছেন এ.কে.এম. জাকারিয়া। দীর্ঘ নয় বছর ধরে শিল্পী মনিরুল ইসলামের সাথে দেশ ও বিদেশের নানা জায়গায় ভ্রমণ করে তাঁর জীবনের নানা গল্প তুলে এনেছেন তিনি এই তথ্যচিত্রে। (সম্পূর্ণ…)

ন্যানো কবিতাগুচ্ছ

বিনয় বর্মন | ২৭ নভেম্বর ২০১৩ ১:৫০ অপরাহ্ন

১.
সুখ অসুখ দুই সহোদর।

২.
মানব, তাই মানি নিজের নিয়ম।

৩.
প্রকৃত প্রেম প্রকৃতপক্ষে অপ্রকৃতিস্থ।

৪.

দৃষ্টি মিলনাত্মক, সৃষ্টি বিয়োগাত্মক। (সম্পূর্ণ…)

ন্যানো সাহিত্যতত্ত্ব: একটি ইশতেহার

রাজু আলাউদ্দিন | ২৫ নভেম্বর ২০১৩ ৩:০০ অপরাহ্ন

তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানীদের বহু দিনের স্বপ্ন বস্তুজগতের তাবৎ রহস্যকে–প্রকৃতির চারটি মৌলিক বলকে এক করে–একটি মাত্র তত্ত্বের সংকেতে (Grand Unification theory) প্রকাশ করা। স্বভাবসুলভ উচ্চাশায় ভর করে, বোর্হেস স্বপ্ন দেখতে গিয়ে বলেছিলেন, “কেমন হয় যদি সকল ভাষা, সকল অভিব্যক্তি, সমগ্র কবিতা কেবল একটি পংক্তিতে, বা এমনকি একটি মাত্র শব্দে সংকুচিত করা যায়?” (সম্পূর্ণ…)

মনির ইউসুফের কবিতা

মনির ইউসুফ | ২৪ নভেম্বর ২০১৩ ৮:২১ অপরাহ্ন

ধান্যবতীর দেশে

কুমারী পৃথিবী থেকে কুয়াশা শুকায়নি, ভোরের হিমহিম শীতে
জঙ্গলে ঘুরে ঘুরে ধান্যবতীর দেশে সকাল কেটে যায়, কী অপূর্ব
আমরা বসত করি এখানে, তিন পথের মাথায় বটগাছ, তারপরে তুলাতলী
পশ্চিম পাশ দিয়ে বয়ে গেছে নীলনাফ। নাফের স্রোতধারা তোমার চেয়ে চঞ্চল
আহা! তুমি ও স্রোত বহো সমান্তারাল। তীর বেয়ে কিছুদূর হেঁটে গেলে মৈনপাহাড় (সম্পূর্ণ…)

রেজাউদ্দিন স্টালিনের কবিতা

রেজাউদ্দিন স্টালিন | ২২ নভেম্বর ২০১৩ ১২:৩১ অপরাহ্ন

আজ ২২ নভেম্বর শুক্রবার কবি রেজাউদ্দিন স্টালিনের ৫১তম জন্মদিন, তাকে জানাই আমাদের আন্তরিক শুভেচ্ছা । তার জন্মদিন উপলক্ষ্যে প্রকাশিত হলো তার নতুন কবিতা।

ফেলানী বৃত্তান্ত

ফেলানী ফেলনা নয় ফেলানী মেঘের বোন নদীর হৃদয়,
সারা বাংলাদেশ আজ ফেলানীর পিতৃ পরিচয়। (সম্পূর্ণ…)

খালিদ ইবনে মারুফের দুটি কবিতা

খালিদ ইবনে মারুফ | ২১ নভেম্বর ২০১৩ ১:২৬ অপরাহ্ন

নাতিদীর্ঘ দিনের কবিতা

একটি অস্তগামী বিকেল-
যখন হেলে পড়া সূর্য স্বচ্ছ কাঁচের দেয়াল ভেদ করে-
আমার ছায়াকে দীর্ঘতর করে তুলছিল।
তন্দ্রাচ্ছন্ন আমি ভাবছিলাম সেই সব মোহনীয় সঙ্গম দৃশ্যের কথা। (সম্পূর্ণ…)

ভাটির পুরুষকথা: সঞ্জীবদার গাড়ী চলে নারে

শাকুর মজিদ | ১৯ নভেম্বর ২০১৩ ১১:২৪ অপরাহ্ন

সঞ্জীবদাকে আমি চিনি ১৯৯০ থেকে, যখন তিনি ‘আজকের কাগজ’ এর ফিচার বিভাগে কাজ করতেন। সে পত্রিকার সাহিত্য সম্পাদক ছিলেন ফরিদ কবির। তাঁর দু’জন সহকারী ছিলেন, একজন তাঁর ছোটভাই সাজ্জাদ শরীফ, আরেকজন সঞ্জীব চৌধুরী। আমি সে দৈনিকের বুয়েট প্রতিনিধি। বুয়েটের সংবাদ ছাড়াও আমার তোলা ছবি ও কখনো কখনো উপসম্পাদকীয় পাতায় আমার লেখা ছাপা হতো। আমি সঞ্জীবদার কাছে লেখা, ছবি পৌঁছে নির্ভার থাকতাম। (সম্পূর্ণ…)

মানিক বৈরাগীর কবিতা

মানিক বৈরাগী | ১৬ নভেম্বর ২০১৩ ১১:৩১ অপরাহ্ন

সবুজ পাতারা খসে পড়ে মৌনতায়

পাতাদের হাসি দেখতে দেখতে পাহাড়ের ধারে যাই
গুপ্ত পাথরের অগ্নি গুঞ্জরণে আমি সংশ্লেষিত হই
তারা আমাকে বলে বুভুক্ষ মানুষেরা শুধুই দহন করে
দখলের মত্ততায় নদীর ধারে যেয়ে দেখো
বাঁকখালী কিভাবে ধর্ষিত হচ্ছে
এমনই খননযজ্ঞে শুধুই চেয়ে থাকে সর্বংসহা
নদীরা আজ ভালো নেই
যৌবন হারিয়েছে নদ (সম্পূর্ণ…)

হে ফেস্টিভেল নিয়ে কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তির মতামত

রাশেদ শাওন | ১৬ নভেম্বর ২০১৩ ৯:২০ অপরাহ্ন

সম্প্রতি বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গনে যে হে ফেস্টিভ্যাল হয়ে গেলো (১৪-১৬ নভেম্বর) তা গতবারের চেয়েও তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি করেছে। এ নিয়ে আমাদের কয়েকজন বিশিষ্ট সৃষ্টিশীল ব্যক্তির মতামত প্রদান করা হলো। (সম্পূর্ণ…)

মতিন বৈরাগীর কবিতাঃ কিছু ভালো-লাগা পংক্তি

বিনয় বর্মন | ১৬ নভেম্বর ২০১৩ ১২:৪৭ পূর্বাহ্ন

১৬ নভেম্বর কবি মতিন বৈরাগী ৬৮-তে পা রাখলেন। কবি ও অনুবাদক বিনয় বর্মনের লেখা এই নিবন্ধের মাধ্যমে কবিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাই। বি. স.

মতিন বৈরাগী আমাদের সেই বয়োজ্যেষ্ঠ কবিদের একজন যিনি প্রায় চার দশক ধরে নিষ্ঠার সঙ্গে কবিতাচর্চা করে চলেছেন। তার কলম এখনো দুর্দান্তরকমে সচল ও সক্রিয়। গত চল্লিশ বছরে তিনি বাঙালি পাঠকদের অনেকগুলো কবিতার বই উপহার দিয়েছেন। এগুলোর মধ্যে আছেঃ বিষণ্ণ প্রহরে দ্বিধাহীন (১৯৭৭), কাছের মানুষ পাশের বাড়ি (১৯৮০), খরায় পীড়িত স্বদেশ (১৯৮৬), আশা অনন্ত হে (১৯৯২), বেদনার বনভূমি (১৯৯৪), অন্তিমের আনন্দধ্বনি (১৯৯৮), অন্ধকারে চন্দ্রালোকে (২০০০), দূর অরণ্যের ডাক শুনেছি (২০০৫), স্বপ্ন এবং স্বাধীনতার গল্প (২০০৭), অন্য রকম অনেক কিছু (২০০৮), খণ্ডে খণ্ডে ভেঙে গেছি (২০১২)। ফেব্রুয়ারি ২০০৮-এ বেরিয়েছে তার কবিতা সমগ্র। সব মিলিয়ে তার সৃষ্টিসম্ভার ব্যাপক ও বিচিত্র। ভাবব্যঞ্জনার সাবলীল প্রকাশ বিদ্যুৎদ্যুতিতে মনকে আলোকিত ও আলোড়িত করে। তার কবিতা থেকে (কবিতা সমগ্রের অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন কাব্যগ্রন্থ) আমার ভালো-লাগা কিছু পংক্তির কথা এখানে চয়িত।
(সম্পূর্ণ…)

পরের পাতা »

Disclaimer & Privacy Policy  |  About us  |  Contact us

© bdnews24.com